মরহুম সার্জেন্ট কিবরিয়ার ঘরের চুরির পিছে মাদক সম্রাজ্ঞীর হাত নেইতো ?

0

মরহুম সার্জেন্ট কিবরিয়ার ঘরের চুরির পিছে মাদক সম্রাজ্ঞীর হাত নেইতো ?

কাভার্ডভ্যান চাপায় নিহত পুলিশ সার্জেন্ট কিবরিয়ার বরিশালের ভাড়াটে বাসায় চুরির ঘটনা ঘটেছিল( শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ১৯ জুলাই)নগরীর মুন্সী গ্যারেজ এলাকার জমিদার বাড়ির বিসর্জন ভবনের তৃতীয় তলায় তার ভাড়াতে বাসায়। তবে তখন চুরির ঘটনায় কি পরিমান ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে তা তাৎক্ষনিক জানাতে পারেনি পুলিশ। পুলিশ বলছিল কিবরিয়ার স্বজন আসার পরে ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান জানা যাবে।
খবর পেয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটনের উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঁঞা, উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) খায়রুল আলম, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আকরাম হোসেনসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছিলেন । বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম জানান, নিহত সার্জেন্ট গোলাম কিবরিয়ার রুহের মাগফেরাত কামনায় তার নিজ বাড়ি পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার সুবিদখালীতে দোয়া-মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। এজন্য কিবরিয়ার স্ত্রী সার্জেন্ট মৌসমী সহ স্বজনরা সকলেই পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে কিবরিয়ার বাড়িতে আজ অবস্থান করছে। সেই সুযোগে বরিশাল নগরের মুন্সী গ্যারেজ এলাকায় তালা ভেঙে কিবরিয়ার ফ্লাট বাসায় প্রবেশ করে দুর্বৃত্তরা।
এরপর, পুলিশের বিশেষ দক্ষতায় ধরা পড়ে বরিশালের কুখ্যাত সোনা চোরাচালানকারী ও চোরামাল ক্রেতা মা জুয়েলার্সের স্বত্বাধিকারী শ্যামল সহ ৮ জন। সংবাদ সূত্র মতে ” ( আগস্ট ৫, ২০১৯)সংবাদ স‌ম্মেল‌নে পু‌লিশ ক‌মিশনার মোঃ শাহবু‌দ্দিন খান সেদিন ব‌লেন, হঠাৎ ক‌রেই ব‌রিশাল নগ‌রে দি‌নের বেলায় চু‌রির ঘটনা বৃ‌দ্ধি পায়। যার সূত্র ধ‌রে মে‌ট্রোপ‌লিটন পু‌লি‌শের দ‌ক্ষিন বিভাগ ও ম‌ডেল থানা পু‌লিশ বি‌শেষ অ‌ভিযানে না‌মে। যার ধারাবা‌হিকতায় সংগবদ্ধ চোর‌দের মূল হোতাসহ ৮ জন‌কে গ্রেফতার ক‌রা হয়।এরা হ‌লো, নগ‌রের নিউ ভা‌টিখানা এলাকার বা‌সিন্দা ও চোরচ‌ক্রের অন্যতম সদস্য আ‌নোয়ার হো‌সেন (২৭), একই এলাকার বা‌সিন্দা মোঃ রিয়াদ (২৫), আমানতগঞ্জ এলাকার জিতু আহ‌ম্মেদ (৪০), পলাশপুর এলাকার ত‌হিদুল ইসলাম (২৮), আজগর আলী সড়‌কের ক‌বির গাজী (২৫), ভা‌টিখানা এলাকার র‌নি (১৯), কাটপ‌ট্টি এলাকার বা‌সিন্দা ও স্বর্ণ ব্যবসায়ী শ্যামল দে (৫৮) এবং ব‌রিশাল সদর উপ‌জেলার চর‌মোনাই এলাকার আ‌লিফ (২৪),
‌পু‌লিশ ক‌মিশনার তখন ব‌লেন, অ‌তি‌রিক্ত উপ পুলিশ ক‌মিশনার (দ‌ক্ষিন) মোঃ আকরামুল হাসান এর নেতৃত্বে ৪ আগষ্ট দিন ও রাত মি‌লি‌য়ে চলমান অ‌ভিযা‌নে ‌চোর‌দে‌র আট‌কের পাশাপা‌শি‌ বিপুল চোরাই মালামাল উদ্ধার করা হয়।এগু‌লোর ম‌ধ্যে ১৫ টি মোবাইল সেট, ৪ টি ল্যাপটপ, ১ টি ট্যাব, ১ টি ডিএসএলআর ক্যা‌মেরা, ১ টি হ্যা‌ন্ডি ক্যামেরা, ২ জোড়া স্ব‌র্ণের বালা, ১ টি স্ব‌র্ণের চেইন, ৫ টি ছোট স্ব‌র্ণের আং‌টি, ৭ টি স্ব‌র্ণের নাকফুল, নগদ ১ লাখ ৪ হাজার টাকা, ১ টি ক‌ম্পিউটার কি বোর্ড, ১ টি কড‌লেস মাউথ স্পিকার, ৩ টি তালা ভাঙ্গার সরঞ্জাম র‌য়ে‌ছে”।

এরমধ্যে, চোরচক্রের মূল হোতা ও পরিবারের দাবী অনুযায়ী বিদেশ ফেরৎ আনোয়ারের পরিচয় হয়ত আইন শৃঙ্খলা বাহিনী পুরোপুরি টের পায়নি। এই চোরের সর্দার বরিশালের পলাশপুরের ৭ নম্বর মসজিদ সংলগ্ন কুখ্যাত মাদক সম্রাজ্ঞী বিউটির আপন ভাই। বিউটি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি গোপন সূত্রমতে বরিশালের সর্বোচ্চ পর্যায়ের একজন মাদক বিক্রেতা ও তার অনুগত একাধিক ” মাদক টিম ” রয়েছে। বিউটি মাদক বিক্রির পাশাপাশি অসাধু পুলিশ সদস্যদের সাথে যোগসাজশে “হিউম্যান সেক্স র্যাকেটিং ” এর নিয়ন্ত্রণেও জড়িত বলে খবর রয়েছে। বিউটির ভাষ্যমতে ” পুলিশের উদ্ধারকৃত টাকা ও মোবাইলের মালিক তিনি নিজে। এবং পুলিশে একজন কর্মকর্তা নাকি তার ভাইকে ছাড়াতে নগদ দুই লাখ টাকাও নিয়েছেন ” , মুঠোফোনে আরও বলেন তিনি ” ১ লাখ ৩০ হাজার বরিশাল থেকে, কানের দুল,ব্রেসলেট, চেইন আর ঢাকা থেকে বিপুল পরিমান টাকা এনে পুলিশের একজন এস আইকে দিয়েছি ” যদিও এ কথা ভিত্তিহীন বলে মনে করার যথেষ্ট কারন আছে, এবং এ কথা প্রমাণে সম্পূর্ণ ব্যার্থ হয়েছে এই মাদক সম্রাজ্ঞী। জনশ্রুতি রয়েছে, বিউটির সর্বশেষ স্বামী একজন সংবাদকর্মী হিসেবে নিজেকে পরিচয় দেয়, যদিও তার সম্পূর্ণ পরিচয় বিউটি দিতে অপারগতা প্রকাশ করে। আশা করা যেতেই পারে যে, পুলিশের বিশেষ দক্ষতায় একটি সিন্ডিকেট ধরা পড়লেও রাঘব বোয়াল-সব ধরা পড়বে অচিরেই।
এখন প্রশ্ন একটাই রয়ে গেল, মরহুম সার্জেন্ট কিবরিয়ার ঘরের চুরির পিছে মাদক সম্রাজ্ঞীর হাত নেইতো ?

লেখকঃ নিয়াজ মো. (অপরাধ বিষয়ক প্রতিবেদক,জাতীয় দৈনিক নতুন কাগজ। প্রকাশক দৈনিক নাগরি. কম। dainiknagorik@gmail.com )

Share.

About Author

Leave A Reply