ব্যাবসায়ী খুনের ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী ঘুরছে প্রকাশ্যে ।

0

ব্যাবসায়ী খুনের ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী ঘুরছে প্রকাশ্যে ।

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:: বরিশালের কাজিরহাট থানাধীন খাসেরহাট বাজারের ব্যবসায়ি মোতাহার হাওলাদার খুন মামলাটি তুলে নিতে বাদীকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই হত্যা মামলার প্রধান আসামি বাবুল সিকদার এলাকায় অবস্থান নিয়ে নানান ভয়ভীতিও দেখাচ্ছেন। অথচ তিনি বিচারাধীন এই মামলাটির প্রধান আসামি এবং তার বিরুদ্ধে আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও রয়েছে। কিন্তু সাম্প্রতিকালে এলাকায় প্রবেশ করে মামলার বাদী নিহত মোতাহার হাওলাদারের ভাই আজহার আলীকে হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন।
বাদী পক্ষের অভিযোগ এই ঘটনায় কাজিরহাট থানায় একাধিকবার অভিযোগ করা হলেও পুলিশ আইনগত কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। যদিও থানা পুলিশের পুলিশের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলা হয়েছে মোতাহার হাওলাদারের কোন খুনি বাবুল সিকদার পলাতক রয়েছেন।

জানা গেছে- ২০০১ সালের ২৭ মার্চ বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজিরহাট খাসেরহাট বাজারের ব্যবসায়ি মোতাহার হাওলাদারকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এই ঘটনায় তার আপন ভাই আজহার আলী হাওলাদার বাদী হয়ে বাবুল হাওলাদারসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মালা করেন।

ওই মামলাটি থেকে ৯ জনকে বাদ দিয়ে ১০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে একটি প্রতিবেদন দেয় পুলিশ। পুলিশের সেই প্রতিবেদনেও জয়নাল সিকদারের ছেলে বাবুল সিকদারকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। কিন্তু তিনি গ্রেপ্তার এড়াতে দীর্ঘদিন পালিয়ে থাকার পরে সম্প্রতি গ্রামে আসেন এবং সন্ত্রাসী বাহিনীকে নিয়ে মামলার বাদীকে হুমকি-ধামকি দেন।

বাদী মোজাহার হাওলাদারের অভিযোগ- মামলাটির অধিকাংশ আসামি জামিনে মুক্ত হয়ে এলাকায় ঘুরছেন। সর্বশেষ এই মামলার প্রধান অভিযুক্ত ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি এলাকায় এসে আতঙ্ক তৈরি করেছেন। মামলাটি তুলে নিতে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে ভয়ভীতিও দেখাচ্ছেন। এই বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশকে অবহিত করা হলেও আইনানুগ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। বরং তাকে গ্রেপ্তারে পুলিশের এক ধরনের অনাগ্রাহের বিষয়টি প্রতীয়মাণ হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন বাদী।

তবে কাজিরহাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অসীম সাহা এই অভিযোগ অস্বীকার করে বরিশালটাইমসকে বলছেন- বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পারে অভিযুক্তের বাসায় শনিবার বিকেলে পুলিশের একটি টিম প্রেরণ করা হয়েছিল। কিন্তু সেখানে গিয়ে তাকে পাওয়া না গেলেও ধরতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করে যাচ্ছে

Share.

About Author

Leave A Reply