বরিশালে ওয়ার্ড নেতার হাতে আহত ব্যাবসায়ী

0

বরিশালে ওয়ার্ড নেতার হাতে আহত ব্যাবসায়ী

বরিশাল মহানগরীর ২৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক সাফিন আহম্মেদ তারিক ও তার লোকজনের হামলায় হাসপাতালে কাতরাচ্ছে ভুক্তভোগী এক যুবক। জমিজমা বিরোধকে কেন্দ্র করে আহত যুবক মো. শামীম কাজীর উপর হামলা করা হয় বলে জানা গেছে। এ নিয়ে কোতয়ালী মডেল থানায় গতকাল শুক্রবার রাতে একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। আহত যুবকের ভাই মো. মিরাজ কাজী অভিযোগ দাখিল করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সাফিন মাহমুদ তারিক’র সাথে শামীম কাজীর জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছিল। আজ ৩০ নভেম্বর জমিজমার বিষয় নিয়ে থানায় বসার কথা ছিল। কিন্তু গতকাল বরিশাল ক্লাব এলাকায় সন্ধ্যা ৮ টায় তারিক ও তার লোকজনের হামলায় আহত হয় শামীম কাজী। হামলার সময় তার পকেট হতে ৮০ হাজার টাকা জোর পূর্বক নিয়ে যাওয়া হয়। অভিযোগ পত্রে ৩ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে এবং ৪ থেকে ৫ জনকে অজ্ঞাতনামা রাখা হয়েছে। এদিকে বর্তমানে শামীম কাজী শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসারত আছেন।

এ সম্পর্কে কোতয়ালী মডেল থানার ওসী (তদন্ত) আসাদুজ্জামান জানান,মারধরের ঘটনায় আমরা একটা অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগটি এসআই আল আমিন খতিয়ে দেখছে। সত্যতা পাওয়া গেলে আইনানুক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে সাফিন আহম্মেদ তারিক জানান,আমি তাকে মারধর করিনি।একটি পক্ষ বরিশাল ক্লাব এলাকায় তাকে আমার সামনে নিয়ে আসে।এ সময় আমি ঐ মহলটিকে বলি আমার শত্রুকে আমার সামনে নিয়া আসলা? এরপর আমার সাথে থাকা লোকজনের সাথে শামীম কাজীর তর্ক বিতর্কের এক পর্যায়ে ধাক্কধাক্কি হয়। তবে মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি।
জমি জমার বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, আজকে থানার বসার কথা ছিল জমির বিষয়ে। তারা বসতে না চাওয়ায় এ মারধরের নাটক সাজিয়েছে। জায়গাটি কার এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এছাড়া জায়গাটি আমার না তার সেটা বড় কথা নয়। আপনার কাছে আমার প্রশ্ন?

জায়গাটি যদি তার হয় তাহলে রাতের আধারে কেন সীমানা প্রাচীর নির্মান করলো। তিনি আরও বলেন, আমি নবনির্বাচিত ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছি। আমি সব সময় অন্যায়ের বিপক্ষে।

Share.

About Author

Leave A Reply