বরিশালে মহাসড়ক আটকে কেক কেটে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

0

বরিশালে মহাসড়ক আটকে কেক কেটে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

অনলাইন ডেস্ক ★★ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার গয়না ঘাটা ব্রিজের নিচে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক আটকে সেখানে কেক কেটে ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়েছে। এতে আধা ঘণ্টা মহাসড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে হাজার হাজার মানুষকে ভোগান্তি ও দুর্ভোগ পোহাতে হয়। গৌরনদী পৌর ও কলেজ ছাত্রলীগের একাংশের উদ্যোগে কেক কাটা অনুষ্ঠানে হাজারো নেতা–কর্মীর সমাবেশ ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী, স্থানীয় লোকজন জানান, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সরকারি গৌরনদী কলেজের ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি সুমন মাহমুদ, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন ও পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মিলন খলিফার নেতৃত্বে আজ বেলা ১১টায় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গৌরনদী উপজেলার গয়না ঘাটা ব্রিজের নিচে মহাসড়কের ওপর প্রায় ৫-৬ হাজার নেতা-কর্মী জড়ো হয়ে সমাবেশ করে এবং ৪০ পাউন্ড ওজনের একটি কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করে। এ সময় মহাসড়কের দুই পাশে দূরপাল্লার যানবাহনসহ শত শত যানবাহন আটকা পরে যানজটের সৃষ্টি হয়। এ সময় প্রায় ৩৫ মিনিট মহাসড়ক আটকে কর্মসূচি পালন শেষে র‌্যালি বের করে তারা। এটি গৌরনদী বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে শেষ করে।

দূরপাল্লার বাস চালক আবু তালেব (৪৪), খবির হোসেন (৪৬) ও কাদের সরদার (৬০) ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মহাসড়ক আটকে রাস্তায় কেক কাটা ঘটনা জীবনেও দেখেননি। এতে শুধু জনদুর্ভোগই সৃষ্টি হয়নি অ্যাম্বুলেন্সে থাকা রোগী ও সাধারণ মানুষের মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে।

বাসযাত্রী ননী বিশ্বাস (৪৯) নামে একজন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘আমরাও ছাত্রলীগের নেতা ছিলাম কিন্তু মহাসড়ক অবরোধ করে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করে মানুষকে কষ্ট দেওয়া ছাত্রলীগের কাম্য হতে পারে না।’

এসব অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে সরকারি গৌরনদী কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি সুমন মাহমুদ ঘটনার বলেন, ‘আমরা মহাসড়কের পাশে লিলা সিনেমা হলের সামনে সমাবেশে ডেকেছি। ৮-১০ হাজার নেতা কর্মী জড়ো হওয়ায় মহাসড়কে যানজট সৃষ্টি হয়েছে এবং অতি উৎসাহী কিছু নেতা-কর্মীরা কেক কেটেছে। অনিচ্ছাকৃত দুর্ভোগ সৃষ্টির জন্য পৌর ও কলেজ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে আমি দুঃখ প্রকাশ করেছি।

মহাসড়ক অবরোধ করে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন প্রসঙ্গে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জোবায়েরুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

গৌরনদী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি অবগত ছিলেন না। আর গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) মাহবুবুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে কেউই অভিযোগ করেনি।

অপরদিকে গৌরনদী উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রলীগের আরেক অংশের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ১০টায় র‌্যালি, কেক কাটা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জোবায়েরুল ইসলাম । এতে বক্তব্য দেন গৌরনদী উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দা মনিরুন নাহার মেরী, পৌর মেয়র হারিছুর রহমান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এইচ এম জয়নাল আবেদীনসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Share.

About Author

Leave A Reply