কলেজ ছাত্রের দুই পা গুড়িয়ে দিল চেয়ারম্যান পুত্র

0

কলেজ ছাত্রের দুই পা গুড়িয়ে দিল চেয়ারম্যান পুত্র।

অনলাইন ডেস্ক★★ পটুয়াখালীর কলাপাড়ার চাকামাইয়া ইউনিয়নে জাকারিয়া হাওলাদার আবির নামে এক কলেজ ছাত্রের দুই পা গুড়িয়ে দিয়েছে চেয়ারম্যানের পুত্র। চাকামাইয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ন কবির কেরামত হাওলাদারের পুত্র মোঃ হাসিব হাওলাদারের নেৃতত্বে এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে।

আহত আবির বর্তমানে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এঘটনায় আহত পিতা রুহুল আমিন বাদী হয়ে ৭ ফেব্রুয়ালী রাতে কলাপাড়া থানায় ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং-০৮/২০। আহত আবির পটুয়াখালী সরকারী কলেজের অনার্স ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী।

ভিকটিমের পরিবারের অভিযোগ-গত ৬ ফেব্রুয়ারী আবির ও তার বন্ধু মাইনুল প্যাদা মটরসাইকেল যোগে নিজ গ্রামের বাড়ী চাকামাইয়া থেকে কলাপাড়া উপজেলার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। গামুরবুনিয়া এলাকায় পৌছালে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা হামলাকারীরা গাছের গুড়া ফেলে তাদের গতিরোধ করে। এসময় কিছু বুঝে ওঠার আগেই চেয়ারম্যানের পুত্র হাসিব ,তার সহযোগী হাসান গাজী, মোস্তফা হাওলাদার, সিদ্দিক, নাসির উদ্দিন,রুবেলসহ অন্তত ১৭ থেকে ১০ জন ধারালো অস্ত্র নিয়ে আবিরের উপর ঝাপিয়ে পরে। মারধোরের একপর্যায় হামলাকারীরা লোহার রড ও হাতুরি দিয়ে আবিরের দুই পায়ে মারাত্মক আঘাত করে। হামলার পর স্থানীয়রা আবিরকে কলাপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি দেখে দায়িত্বরত ডাক্তার বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।

আবিরের পিতা অভিযোগ করে আরো জানায়-বিগত দিনে ইউনিয়ন পরিষদের জের ধরে তাদের মধ্য কলহ চলে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় হামলাকারীরা তাদের পরিবারের সদস্যকে একেরপর এক হয়রানী করে আসছে।

আবিরের বড় ভাই নেছার হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন-এর পূর্বের তার বড় ভাই বাশারকে একই স্থানে আটক করে সন্ত্রাসী হামলার পায়তারা লিপ্ত হলে স্থানীয় ইউপি সদস্য জাকির হোসেন ও স্থানীয়দের সহায়তার প্রাঁণে রক্ষা পায়। এছাড়াও একটি খুনের ঘটনায় তার তার পরিবারের সদস্যকে আসামী করা হয়েছে। কলাপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুল ইসলাম এ প্রসঙ্গে বলেন-এঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্তদে আইনের আওতায় আনতে তৎপর রয়েছে।

Share.

About Author

Leave A Reply