সংবাদ প্রকাশের পর চালক সাদ্দাম, দালাল হান্নানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা।

0

সংবাদ প্রকাশের পর চালক সাদ্দাম, দালাল হান্নানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা।

বরিশাল ব্যুরো ||দৈনিক নাগরিক.কম এ একাধিকবার ভিডিও সংবাদ প্রচারের পর চালক সাদ্দাম, দালাল হান্নানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে কতৃপক্ষ।
বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খানের নির্দেশে উপ-পুলিশ কমিশনার উত্তর মো. খাইরুল আলমের নের্তৃত্বে ঈদকে সামনে রেখে করোনার বিস্তার রোধে আরও কঠোর ভাবে মাঠে নেমেছে পুলিশ।

রবিবার (১৭ মে) সকাল ১০ টা থেকে বরিশাল মেট্রোর প্রবেশদ্বার রামপট্টি বাজার,রহমতপুর স্টান্ড,গড়িয়ারপার,চাঁদপাশার বটতলা,বেলতলা খেয়াঘাট ও নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল এলাকায় সারাদিন চেকপোস্ট বসিয়ে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ।

উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আলম জানান,লকডাউন কার্যকর করতে চলমান অভিযানের সময় ঢাকা থেকে একটি মাইক্রোবাস পুলিশকে ভুল বুঝিয়ে যাত্রীসহ বরিশালে ঢুকে নথুল্লাবাদ শেরে বাংলা সড়ক প্রথম গলির মধ্য যাত্রী নামানোর সময় পুলিশ মাইক্রোবাসটিকে আটক করে মাইক্রোবাস নম্বর ঢাকা মেট্রো-চ-১৩৯৬৬৫।

পরে জেলা প্রশাসকের কাছ জানালে তিনি নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পাঠিয়ে দেন।নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এফ এম শামীম মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে মাইক্রোবাসের ড্রাইভার সাদ্দাম শেখ ও দালাল মো. হান্নানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এ সময় তিনি আরও জানান, প্রানঘাতি মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী এক জেলার লোক অন্য জেলায় এবং এক উপজেলার লোক অন্য উপজেলায় যেতে পারবেনা।

নিজেদের অর্থনৈতিক প্রয়োজনে বাইরে বের হলেও কাজ শেষে সকলকে নিজ নিজ গৃহে অবস্থান করে মহামারি করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ যুদ্ধ চালিয়ে যেতে হবে।

উপ-পুলিশ কমিশনার মো. খাইরুল আলম বলেন ঈদকে সামনে রেখে জরুরী প্রয়োজন ব্যাতীত কেউ বরিশালে প্রবেশ এবং বরিশাল থেকে বাইরে যেতে পারবেননা। মহামারী করোনার সংক্রমন ঠেকাতে এরকম উদ্যোগ নেয়া হয়েছে এবং এটা চলমান থাকবে।
সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী, এ অবস্থায় যথোপযুক্ত কারণ ছাড়া কোন ব্যক্তি যানবাহন ব্যবহার করলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বরিশাল এয়ারপোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ জাহিদ বিন আলম এ এস আই মো. জালাল সহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা।

Share.

About Author

Leave A Reply